সম্পর্ক সুস্থ রাখতে ক্রোধ থেকে দূরে থাকুন!

চরম অসন্তুষ্টি ও ক্রোধের কারনে যে কোন সম্পর্কের মধ্যে খুব বাজে অবস্থার সৃষ্টি হতে পারে। রাগ করে যখন সঙ্গী আপনার সাথে খুব বাজে ব্যবহার করে তখন পৃথিবীটায় শূন্য মনে হতে থাকে। প্রথমত ভালোবাসার মানুষের এরকম রুপ দেখলে মনটায় ছোট হয়ে যায়, আত্মবিশ্বাস ভেঙ্গে পড়ে। নিজের ভালোবাসার উপর সন্দেহ দানা বাঁধতে থাকে।

যখন আপনার ভালোবাসার সঙ্গী আপনার সাথে ক্রোধপূর্ণ আচরণ করে তখন সেই মানুষটাকে একেবারে অচেনা মনে হয়, মনের ভেতর কষ্ট পাহাড় বাঁধে।এই কষ্টটা কারো সাথে ভাগ করে নেওয়া যায় না, নিজের মনে নিরব রক্তক্ষরণ হয়। এ ধরনের আচারন যদি পুনঃ পুন হতে থাকে তবে ভালোবাসা কমতে থাকে অনেক সময় ভালোবাসা শেষ হয়ে সম্পর্কটায় ভেঙ্গে যায়।

কিভাবে ক্রোধকে কমিয়ে মায়া বাড়াবেন তার কিছু উপায় আলোচনা করা হলোঃ

হঠাৎ রেগে গেলে উত্তর দেওয়ার আগে ১০ পর্যন্ত গুনুনঃ যদি হঠাৎ রেগে যান তবে সাথে সাথে উত্তর না দিয়ে কিছুটা সময় গ্রহণ করুন, মনে মনে ১০ পর্যন্ত গুনুন, এর ফলে কথা গুলো সতর্ক ভাবে বলতে সময় পাবেন, পরবর্তীতে নিজের কথার জন্য নিজেকে অনুতাপ করতে হবে না।

নিজেকে সঙ্গীর স্থানে রাখুনঃ সবসময় সঙ্গীর স্থানে নিজেকে রেখে দেখবেন, রেগে আপনি সঙ্গীর সাথে যে ব্যবহার করেন, তার স্থানে আপনি থাকলেও একই অভিজ্ঞতা আপনার হবে। কিছুটা হলেও কষ্টটা অনুভব করতে পারবেন।

মনোযোগ সহকারে শুনতে চেষ্টা করুনঃ সঙ্গী রেগে যে কথা গুলো আপনার উদ্দেশ্যে বলে, কথা গুলো যদি সঙ্গীকে হুবহু তাকে শুনান তবে সে বুঝতে পারবে তার কথা গুলো কতটা তিক্ত ছিলো। মনোযোগ সহকারে সঙ্গীর কথা গুলো শুনুন ।

ভালোবাসার ছোঁয়াঃ যখন দেখবেন সঙ্গী রেগে যাচ্ছে, তখন তাকে জড়িয়ে ধরুন, আদর করুন অথবা যারা বিবাহিত তারা শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করতে পারেন এতে করে সঙ্গীদের মধ্যকার ভালোবাসার আবেগ বৃদ্ধি পায় সব রাগ অভিমান চলে যায়।

সঙ্গীর প্রতি মায়া বৃদ্ধি করুনঃ প্রতিদিন সময় করে আপনার সঙ্গীর চোখে চোখ রাখুন, তাকে বোঝার চেষ্টা করুন, তার প্রতি মায়া বৃদ্ধি করুন। আপনার প্রতি তার অনুভূতি গুলোকে বোঝার চেষ্টা করুন। মায়া যতো বাড়বে ভালোবাসাও ততো বাড়বে অপরদিক থেকে সম্পর্কের ক্রোধের পরিমাণও অনেক কমে যাবে। রাগ বা ক্রোধ এক প্রকার মানবীয় আবেগ, ক্ষোভ থেকে সৃষ্টি হয়। সব মানুষের ভেতরে ক্রোধ থাকে তবে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে, এই ক্রোধটা যেন সম্পর্কের মাঝে এসে না পড়ে। ভালোবাসার সম্পর্ক দীর্ঘ স্থায়ী করতে হলে সঙ্গী একে অন্যকে তাদের প্রাপ্য সম্মান দিতে হবে।

Leave a Reply